হাওয়া মুভি রিভিউ | হাওয়া মুভি দেখার উপায়

হাওয়া মুভি রিভিউ

আপনাদের সবাইকে স্বাগতম হাওয়া মুভি রিভিউ তে। বিনোদনের জন্য মুভির গুরুত্ব অপরিসীম। আর এই বিনোদন আরও এক্সট্রা লেভেলে পেতে হলে আমাদের প্রয়োজন সেই মুভি সম্মন্ধে রিভিউ। কারন আমরা মুভি দেখার পরেউ অনেকে সেটার অর্থ বুঝিনা তাই আজকে আমাদের এই পোষ্টে থাকছে হাওয়া মুভি রিভিউ এবং হাওয়া মুভি এক্সপ্লেনেশন। আমাদের এই ওয়েবসাইটে অনেকে এসেছেন হাওয়া মুভি ডাউনলোড লিংক সংগ্রহ করতে। কিন্তু আমরা এই অনৈতিক কাজ করব না। আপনারা অবশ্যই হাওয়া মুভি টি সিনেমা হলে গিয়ে উপভোগ করুন।

হাওয়া মুভির রিলিজ

২০১৯ সালের ১৩ অক্টোবর হাওয়া মুভির কাজ শুরু হয় এবং ২০২২ সালে ২৯ জুলাই ২৪টি হলে মুক্তি পায়। পরবর্তীতে বিভিন্ন দেশে মুক্তি পায় এবং সর্বত্রই সুনাম পেয়েছে ছবিটি। বাংলা সিনেমার ইতিহাসে হাওয়া মুভির নাম লিখা থাকবে অন্যতম সাফল্য হিসেবে।

https://www.youtube.com/watch?v=5jRQe0-41oI

 হাওয়া মুভি রিভিউ 

মেজবাউর রহমান সুমন-এর পরিচালনা করা চলচ্চিত্রটি কক্সবাজারের একটি সমুদ্রগামী নৌকার মাছ ধরে জীবিকা নির্ধারণ করা মাঝি দলের জীবনযাত্রাকে চিত্রিত করে, যেখানে একজন রহস্যময়ী নারীর আবির্ভাব এলোমেলো করে দেয় সবকিছু। পরিচালক বলেছেন চলচ্চিত্রটি একটি রূপকথার গল্পের উপর ভিত্তি করে রচিত হয়েছে।

হাওয়া মুভির ক্যারেক্টার:

  1. চান মাঝি – চঞ্চল চৌধুরী
  2. গুলতি – নাজিফা তুষি
  3. ইবা (ইব্রাহীম) – শরিফুল রাজ
  4. এজা – সুমন আনোয়ার
  5. নাগু – নাসির উদ্দিন খান
  6. উরকেস – সোহেল মণ্ডল
  7. পারকেস – রিজভী রিজু
  8. ফনি – বাবলু বোস
  9. মরা – মাহমুদ আলম

হাওয়া মুভির গল্প:

গভীর সমুদ্রে গন্তব্যহীন একটি ফিশিং ট্রলারে আটকে পড়া আটজন মাঝি মাল্লা এবং এক রহস্যময় বেদেনীকে ঘিরে চলচ্চিত্রটির কাহিনী নির্মিত হয়েছে। কাহিনীর শুরুতে দেখা যায় চান মাঝির নেতৃত্বে একদল মাঝি গভীর সমুদ্রে রওনা হয় মাছ ধরতে। মাছ ধরার জন্য তারা জাল ফেললে অনেক বেশি মাছ পাচ্ছিল, এতে সকলেই খুশি ছিল। একদিন জালে অনেক ভার লাগছিল, সবাই ভাবে অনেক বড় মাছ উঠবে। কিন্তু না, কোনো মাছ উঠেনি উঠেছিল একটি মেয়ের লাশ। কিন্তু কিছুক্ষণ পর দেখা যায় লাশটা তখনো জীবিত, মেয়েটি উঠে বসলো। কিন্তু কথা বলতে পারতোনা মেয়েটি, এককথায় যাকে বোবা বলে। কিছুদিনের মধ্যেই নৌকার সবাই মেয়েটির দিকে আশক্ত হয়ে পরে। সবাই শুধু ঐ মেয়েটার দিকেই ঝুকে আসে।

আরও পড়ুনঃ  Dev New Movie: টলিউড সুপারস্টার দেবের সঙ্গে আরও একবার জুটি বাঁধতে চলেছেন সৌমিতৃষা কুণ্ডু

একদিন নৌকার সবাই অন্য একটি ট্রলালে গিয়ে নাচ গান করতে থাকে “সাদা সাদা কালা কালা” গানের সাথে। এসময় মেয়েটি নৌকায় একা ছিল। এই সুযোগে চান মাঝি সুযোগ নিতে চায় এবং মেয়েটিকে কুপ্রস্তাব দেয়। মেয়েটি নিজেকে বাচাতে একটি বটি নিয়ে চান মাঝির উপর আক্রমণ করে বসে। চান মাঝি পানিতে পড়ে যায় এবং এ যাত্রায় বেচে যায়।

এরপরি শুরু হয় আসল কাহীনি। এতক্ষণ যে মেয়েকে নায়িকা ভেবেছে দর্শক সে মেয়েকে কখনো ভূত আবার কখনো ডাইনি আবার কখনো অন্য কিছু মনে হবে। জানা যাবে মেয়েটি বোবা নয়, কথা বলতে পারে। এরপর শুরু হয় এক এক করে মাঝিদের মৃত্যু। এ এক রহস্যময় কাহীনি। পুরোটা নাই বল্লাম। মুভি দেখে আসল স্বাদ গ্রহণ করুন, ধন্যবাদ।

হাওয়া মুভি এর ইতিবাচক দিক কি কি? 

হাওয়া আমার দেখা আমাদের দেশের এখনো পর্যন্ত সবচেয়ে টেকনোলজিক্যালি সাউন্ড ফিল্ম। এই ফিল্মের ক্যামেরার কাজগুলো অসাধারণ। লাইটের ব্যবহার দেখে মনেই হবে না আদৌ কৃত্রিমভাবে কিছু করা হয়েছে, বিশেষ করে ঝড়-বৃষ্টি বা বিদ্যুৎ চমকের দৃশ্যগুলোর ক্ষেত্রে লাইটের ব্যবহার একেবারে নিখুঁত। চমৎকার করে সাজানো হয়েছে সেট। ফিল্মটি আপনাকে রিয়েলিস্টিক ফীল দিয়েই ছাড়বে।

চমৎকার হয়েছে রূপসজ্জা বা মেক-আপের কাজ-ও। যে ক’জন অভিনেতা ছিলেন, তাদের মধ্যে একমাত্র নাজিফা তুষি ছাড়া প্রত্যেকে চমৎকারভাবে মানিয়ে গেছেন তাদের চরিত্রে। ফিল্মটি দেখার মধ্যে এক মূহুর্তের জন্য-ও মনে হয়নি যে এরা অভিনেতা, বরং প্রত্যেককেই মনে হয়েছে রিয়াল লাইফ মাঝি।

হাওয়া মুভি দেখার উপায়
হাওয়া মুভি দেখার উপায়

অভিনয় ডিপার্টমেন্ট ছিলো টপ-নচ। প্রত্যাশিতভাবেই চঞ্চল চৌধুরী তার “চান মাঝি” চরিত্রে ছাড়িয়ে গেছেন বাকি সবাইকে। অসাধারণ ছিলো সুমন আনোয়ার-এর “ইজা” চরিত্রটি। চঞ্চলের চরিত্রটির পজিটিভ থেকে নেগেটিভ ট্র্যাঞ্জেকশন থাকলেও ইজা শুরু থেকেই নেগেটিভ, তারপর-ও তার চরিত্রের টানাপোড়েন ছিলো দেখার মতো। “উরকেস-পারকেস” চরিত্রে খুবই সাবলীল ছিলেন সোহেল মন্ডল আর রিজভি রিজু। প্রশংসার দাবীদার ছিলো নাসিরুদ্দিন খান-এর “নাগু” চরিত্রটিও।

ইন্টারভ্যালের পর থেকে গল্প তুমুল গতিতে এগিয়ে গেছে। একপর্যায়ে শ্বাসরূদ্ধকর অবস্থায় ছিলো গল্প। চিত্রনাট্যের পাশাপাশি এখানে চঞ্চল চৌধুরীর অবদান-ও আছে। গুণী অভিনেতা শুরু থেকে গল্পে কোনো ভূমিকা না রাখলেও শেষের দিকে যখন রঙ্গমঞ্চে অবতীর্ণ হলেন, তখন মনে হলো তিনি একাই এই ফিল্ম টেনে নিয়ে যেতে যথেষ্ঠ। আবহ সঙ্গীতের ব্যবহার-ও বেশ ভালো ছিলো। মোক্ষম সময়ে চমৎকার আবহ সঙ্গীত-এর ব্যবহার পেয়েছি।

আরও পড়ুনঃ  Upcoming Movies And Web Series December 2023: ডিসেম্বরের ঠান্ডায় এই বিস্ফোরক সিনেমা এবং ওয়েব সিরিজ আসছে!

হাওয়া মুভির নেতিবাচক দিকগুলো কি কি?

প্রথমেই বলতে হবে সাউন্ডের বিষয়টা। সাউন্ড মিক্সিং-এর কাজ ভালো হয়নি। ডায়লগগুলো স্পষ্ট হয়নি। এটা কতোটুকু ইচ্ছাকৃত, আর কতোটুকু গালিগালাজ লুকানোর জন্য তা জানি না। তবে গালিগালাজে অন্তত আমার কোনো সমস্যা নেই। কক্সবাজারের জেলেসমাজকেই আমরা পর্দায় দেখছি, এটা বোঝাতে গেলে এছাড়া উপায় ছিলো না। তবে প্রথমদিকে কথাবার্তা একেবারে বোঝাই যাচ্ছিলো না, সাউন্ডের অবস্থা এতোটাই খারাপ ছিলো।

গল্পের মূল অপরাধী চিত্রনাট্য। ইন্ট্রোডাকশন পার্ট ইন্টারভ্যাল পর্যন্ত চলে গেছে। গল্পের পাত্র-পাত্রীদের সাথে পরিচয় করিয়ে দিতে পরিচালক অতিরিক্ত সময় নিয়ে নিয়েছেন, যার ফলে গল্প ঝুলে গেছে। ফিল্মের প্রথম অংশ দেখার পর পরের অংশ কেনো দেখবেন এই নিয়ে আপনি সংশয়ে পড়তে বাধ্য। ফিল্ম আপনাকে পরের অংশ দেখতে টানবে না। এখানে আপনি কোনো স্পেসিফিক বিল্ড-ও পাবেন না, যেটা আপনাকে ইন্টারভ্যালের পরে টেনে নিয়ে যাবে।

গল্পে সবকিছুই হয় হুট করে। কোনোকিছুই এখানে বিল্ড করা হয় না। হুট করেই জালে মাছ আসা বন্ধ হয়ে যায়, হুট করেই গুলতি-র সাথে ইবা-র প্রেম হয়ে যায়, হুট করেই চান মাঝির পৈশাচিক সত্ত্বা সামনে আসে, আবার হুট করেই বিভিন্ন অলৌকিক বিষয়-আষয় হতে থাকে। গল্পে কমেডি-র প্রবণতা যতো বেশী আছে, সেই তুলনায় বিল্ডের পরিকল্পনা বলতে গেলে নেই। নাগু চরিত্র অন্ডকোষে লাথি খেয়ে ব্যাথা জায়গায় বরফ ঘষে দর্শককে যতোটুকু হাসানোর চেষ্টা করেছে, একেবারে সাডেনলি অলৌকিকভাবে জালে মাছ ওঠা বন্ধ হয়ে যাওয়ায় তাকে তার সমপরিমাণ বিচলিত হতেও দেখা যায়নি। অথচ পরেরটারই বিল্ড প্রয়োজন ছিলো।

ব্যক্তিগতভাবে মনে হয়েছে নাজিফা তুষি এখনো পর্যন্ত এতোবড় চরিত্র ক্যারি করার উপযোগীই হননি। তার প্রচেষ্টার জন্য সাধুবাদ দিতেই হবে, তবে তার এক্সপ্রেশনে, বডি ল্যাঙ্গুয়েজে, রূপসজ্জায়, সবকিছুতেই ফেইকনেস চলে এসেছে। আমি জানি না গল্পের জন্য তাকে কতোটুকু “ইরি”-ভাবে উপস্থাপণ করার চেষ্টা করা হয়েছে, কিন্তু যেই মুহুর্ত থেকে গুলতি কথা বলা শুরু করেছে, তখন থেকেই তার মধ্যে বিন্দুমাত্র রহস্য-ও আর অবশিষ্ট ছিলো না। অথচ এই গুলতিই ছিলো হাওয়া ফিল্মের প্রধান চরিত্র।

আরও পড়ুনঃ  বাংলাদেশে সেন্সরশিপের বাধার সম্মুখীন 'অ্যানিমেল', কী বলছেন কিবরিয়া

Hawa Movie IMDB Rating

অন্যান্য পোষ্ট>> 

শেষ কথা 

শেষে বলবো ফিল্মে অনেককিছু অ্যাড করতে গিয়ে ক্ষতিই হয়েছে। ফিল্মটি না হয়েছে রূপকথা, না হয়েছে থ্রিলার, না হয়েছে পুরোপুরি হরর। চিত্রনাট্য অনুযায়ীই যদি চিত্রগ্রহণ হয়, তাহলে বলতে হবে মূল ঘাপলা চিত্রনাট্যেই। গল্পে প্রথম ভাগে হরর-এর ছিটেফোঁটাও ছিলো না, সহজ সাধারণ জেলেদের সামাজিক গল্প থেকে দ্বিতীয় ভাগে তাতে যুক্ত হয় রহস্য, যেটা শেষের দিকে হরর থেকে আবার ফ্যান্টাসী-তে টার্ণ করে। ফলে ফিল্ম শেষ করার পর প্রশ্ন থেকেই যায়, যে আমি ইহা কি দেখিলাম?

হাওয়া ফিল্মে বেশ কিছু ত্রুটি আছে, তবে একইসাথে টেকনিক্যালি এমন সাউন্ড মুভিও আমাদের দেশে খুবই বিরল। আমাদের ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির বর্তমান প্রেক্ষাপট অনুযায়ী এখন-ও আমরা “কমপ্লিটলি নিখুঁত” মুভি আমাদের দেশে আশা করতে পারি না। কিন্তু টেকনিক্যালি নিখুঁত বা এর ধারেকাছে মুভি বানানোকেও যদি আমরা নিয়মিত বানাতে পারি, তাহলে নিখুঁত মুভি বানানোর খুব কাছেও আমরা যেতে পারবো। এরজন্য হাওয়া বা হাওয়া-র মতো মুভিগুলোকে দর্শক হিসেবে আমাদের সাপোর্ট দিতে হবে।

TAG: হাওয়া মুভি ডাউনলোড লিংক mlwbd,হাওয়া মুভি রিলিজ,হাওয়া মুভি বাংলা ডাউনলোড,হাওয়া মুভির গান,হাওয়া মুভি বাংলা download,হাওয়া মুভি লিংক,হাওয়া মুভি বাংলা ফুল,হাওয়া মুভি হল লিস্ট,movie bd 24.xyz হাওয়া মুভি,হাওয়া মুভি রিলিজ ডেট,হাওয়া মুভি রিভিউ,হাওয়া মুভির কাহিনী,হাওয়া মুভি টিকেট,হাওয়া মুভি বাংলা ডাউনলোড লিংক,হাওয়া মুভির টিকেট,হাওয়া মুভি কোন কোন হলে চলবে,হাওয়া মুভি download link,হাওয়া মুভির লিংক,হাওয়া মুভি চঞ্চল চৌধুরী,হাওয়া মুভি ডাউনলোড লিংক গুগল ড্রাইভ,হাওয়া মুভি টিকেট মূল্য,হাওয়া মুভি full movie download,হাওয়া মুভি online watch,হাওয়া মুভি mlwbd,hawa movie download link,hawa movie download,hawa bangla movie download,hawa full movie online,hawa full movie download,hawa full movie download 720p,hawa movie watch online,tomar khola hawa lyrics,hawa box office collection,mlwbd. com,mlwbd com,mlwbd com bangla,mlwbd movie,mlwbd website,mlwbd com bangla movie,হাওয়া মুভি ডাউনলোড লিংক mlwbd.

About the Author

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You may also like these

Share via
Copy link