Honda Electric Bike: হোন্ডার প্রথম ই-বাইক লঞ্চ হতে পারে 2024 সালে, থাকছে অনেক সুবিধা

Honda Electric Bike

Honda Electric Bike: জনপ্রিয় Two Wheeler Company হোন্ডা নতুন বছরের শুরুতে তাদের প্রথম ইলেকট্রিক বাইক লঞ্চ করছে ২০২৪ সালে। বিশ্ববাজারে এই মুহূর্তে অসংখ্য ই-বাইক রয়েছে। বৈদ্যুতিক গাড়ির চাহিদা দিন দিন বাড়ছে। তাই ছোট-বড় সব কোম্পানি তাদের নিজস্ব ইলেকট্রিক গাড়ি, বাইক, স্কুটার নিয়ে বাজারে আসছে।

খুব শীঘ্রই ইলেকট্রিক বাইক আনতে চলেছে হোন্ডা। জাপানি কোম্পানি Honda এই বাইকটি ২০২৪ সালেই লঞ্চ করতে পারে বলে জানা যাচ্ছে। কোম্পানিটি স্কুটারের মাধ্যমে ইলেকট্রিক টু হুইলার বাজারে প্রবেশ করবে।

Honda Electric Bike সম্মন্ধে বিস্তারিত

আগেই জানা গেছে এই ইলেকট্রিক স্কুটারটি কোম্পানির জনপ্রিয় বাইক Activa এর উপর ভিত্তি করে তৈরি করা হচ্ছে। তবে স্কুটারটির ডিজাইন খুবই ফিউচারিস্টিক। হালফিলের কনসেপ্ট বৈদ্যুতিক যানবাহনে সাধারণত দেখা যায় এমন র‍্যাডিকল ভিজ্যুয়াল ইন্সটুমেন্ট স্কুটারে নেই।

আরও পড়ুনঃ  কি কি কারণে বাইকের স্পিড কমে যায়? আজই বাড়িয়ে নিন আপনার বাইকের স্পিড

বৈদ্যুতিক স্কুটারের সামগ্রিক প্রোফাইল আধুনিক স্কুটারগুলির মতোই। স্কুটারের সামনের দিকে আলোকিত হোন্ডা ব্র্যান্ডিং সহ একটি LED লাইট বার এটিকে এক্কেবারে অনন্য পরিচয় দেয়। স্কুটারের সামনের লাইটিং প্যানেলে Electrifying touch in blue accents যোগ করে। এছাড়াও একই স্পর্শ আবার হ্যান্ডেলবার থেকে ফ্লোরবোর্ড, টেইল সেকশন এবং বাব মোটরেও রয়েছে।

স্কুটারটি একটি রিমুভেবল ব্যাটারি প্যাক সহ দেয়া হচ্ছে, যা সিটের নীচে সেট করা হয়েছে। যেহেতু ব্যাটারি এই স্কুটারের সিটের নীচে অনেক জায়গা নিবে, তাই আলাদাভাবে জিনিসগুলি সংরক্ষণ করার জন্য খুব বেশি জায়গা অবশিষ্ট থাকবে না।

প্রতিটি রিমুভেবল বা অদলবদলযোগ্য ব্যাটারি প্যাকের ক্ষমতা প্রতি ঘন্টায় ১.৩ কিলোওয়াট, যেটিকে হোন্ডা মোবাইল পাওয়ার প্যাক বলা হচ্ছে। টেলিস্কোপিক ফ্রন্ট ফর্ক, রিয়ার মনোশক, ফ্রন্ট ডিস্ক এবং রিয়ার ড্রাম ব্রেক সেটআপ নিশ্চিত করা হয়েছে। এই Honda ইলেকট্রিক স্কুটারটি ১২ ইঞ্চি চাকায় চলবে। ভারতে বাইকের দাম অন্যান্য ইলেকট্রিক বাইকের কাছাকাছি হবে বলে মনে করছেন বাজার বিশেষজ্ঞরা।

আরও পড়ুনঃ  Volkswagen Taigun এ ১.৪৬ লক্ষ রুপির সীমিত সময়ের জন্য বিশাল ছাড়, তাড়াতাড়ি করুন!

Honda Activa Electric scooter price

জানা গেছে, মোটরসাইকেল বাজারে যে প্লাটফর্ম তৈরি করেছে হোন্ডা, তাকে অনুসরণ করে তারা ইলেকট্রিক বাইক বাজারে আনবে। বাইকের দাম পেট্রোল বাইকের কাছাকাছি রাখা হবে। এই মুহূর্তে, সমস্ত ভর্তুকির পরে, বৈদ্যুতিক বাইকের দাম ১,৬৭,৫০০ টাকা এবং ১২৫ সিসি পেট্রোল মোটরসাইকেলের দাম ৮২,০০ টাকা। অন্যান্য খবর পড়তে ভিজিট করুন হোমপেজ। এছাড়া এমন খবর সবার আগে পেতে জয়েন হোন আমাদের Whatsapp গ্রুপে।

High light

About the Author

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You may also like these

Share via
Copy link