পাসপোর্ট সংশোধনের অঙ্গীকারনামা কিভাবে পূরণ করবেন

পাসপোর্ট সংশোধনের অঙ্গীকারনামা

এই ব্লগের আলোচনার বিষয় হল “পাসপোর্ট সংশোধনের অঙ্গীকারনামা” নিয়ে বিস্তারিত তথ্য আপনাদের সামনে তুলে ধরা। আর তাই আজ উপস্থিত হলাম পাসপোর্ট সংশোধনের অঙ্গীকারনামা কিভাবে পূরণ করবেন এই তথ্যবহুল পোষ্ট নিয়ে। তবে এই পোষ্ট পড়ার আগে আপনারা এই পোষ্ট পড়ে নিন>> অঙ্গীকারনামা লেখার নিয়ম ও নমুনা | অঙ্গীকারনামা চুক্তি পত্রের নমুনাএতে করে আপনি আরও ক্লিয়ার হবেন

পাসপোর্ট সংশোধনের অঙ্গীকারনামা

বন্ধুরা সম্প্রতি ১৩ ডিসেম্বর ২০২২ তারিখে প্রকাশিত পাসপোর্ট সংশোধন প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী জাতীয় পরিচয় ও অপ্রাপ্ত বয়স্কদের ক্ষেত্রে জন্ম সনদ অনুসারে পাসপোর্ট সংশোধন করা যাবে। পাসপোর্ট সংশোধনের জন্য অনলাইনে আবেদন করতে হবে। এছাড়া অনলাইন আবেদনের সাথে একটি লিখিত আবেদন ও অঙ্গীকারনামা জমা দিতে হবে।

আরও পড়ুনঃ  জেনে নিন সরকারি কলেজে ভর্তির জন্য কত পয়েন্ট লাগবে - College Admission Points

পাসপোর্ট অধিদপ্তর অঙ্গীকারনামার একটি নমুনা প্রকাশ করেছে। অঙ্গীকারনামা ফরমটি পাসপোর্ট অফিস বা তার আশে পাশে ফটোকপির দোকানে পেতে পারেন। এছাড়া ফরমটি ডাউনলোড করে নিতে পারেন লিংক থেকে পাসপোর্ট সংশোধন অঙ্গীকারনামা

পাসপোর্ট সংশোধনের অঙ্গীকারনামা ফরম

পাসপোর্ট অধিদপ্তর কর্তৃক প্রকাশিত অঙ্গীকারনামার নমুনাটি নিচে দেখুন।

পাসপোর্ট সংশোধনের অঙ্গীকারনামা

অঙ্গীকারনামা ফরমটি ডাউনলোড করুনঃ

কিভাবে পূরণ করবেন পাসপোর্ট সংশোধনী অঙ্গীকারনামা?

অঙ্গীকারনামায় প্রথমে আপনার বর্তমানে শুদ্ধ নাম, পিতা-মাতার নাম ও জাতীয় পরিচয়পত্র বা জন্ম নিবন্ধন নম্বর লিখুন। এবার পাসপোর্ট নম্বর ও ইস্যুর তারিখ লিখুন। পাসপোর্টে কোন তথ্য ভুল লেখা হয়েছে তা উল্লেখ করুন। তারপর ছকের বাম পাশে পাসপোর্টের ভুল তথ্য ও ডান পাশ সঠিক তথ্য লিখে নিচে স্বাক্ষর প্রদান করুন। জানুন বিলিরুবিন কোথায় তৈরি হয়? | What Is Bilirubin In Bengali?

আরও পড়ুনঃ  বাংলাদেশের বিজয় দিবস কবে এবং ১৬ ডিসেম্বর ২০২৩ কততম বিজয় দিবস?

পাসপোর্ট সংশোধন করার নিয়ম ভিডিও

অঙ্গীকারনামা পূরণের ক্ষেত্রে যে বিষয়গুলো খেয়াল রাখবেন:

  • ফরমটি প্রিন্ট করে হাতে পূরণ করেও জমা দিতে পারবেন।
  • অপ্রাপ্ত বয়স্কদের ক্ষেত্রে জন্ম নিবন্ধন নম্বর লিখতে হবে।
  • পাসপোর্ট নাম্বার, পাসপোর্ট ইস্যুর তারিখ ও ছকে পাসপোর্টের তথ্যসমূহ পাসপোর্টে যেভাবে আছে অর্থাৎ ইংরেজিতে লিখলে ভাল হয়।

নিচে কম্পিউটারে কম্পোজ করা একটি অঙ্গীকারনামার নমুনা দেয়া হলো।

পাসপোর্টের তথ্য সংশোধনী অঙ্গীকারনামা

শেষ কথাঃ 

পাসপোর্ট সংশোধনের অঙ্গীকারনামা কিভাবে পূরণ করবেন তা উপরে আলোচনা হতে বিস্তারত জানতে পেরেছেন। আপনারা যদি সম্পূর্ন পড়ে থাকেন মন দিয়ে এবং ভিডিওটি যদি দেখে থাকেন তবে আশাকরি আপনাদের মনে কনো প্রশ্ন থাকবেনা। যদি কোনধরনের প্রশ্ন থাকে তবে আমাদের কমেন্টের মাধ্যমে আমাদের তা জানাতে পারেন। এছাড়া চাইলে আমাদের সাথে Facebook এ সরাসরি যোগাযোগ করতে পারেন। সবাইকে ধন্যবাদ।

আরও পড়ুনঃ  ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস আলোচনা | ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস

About the Author

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You may also like these

Share via
Copy link