কেনো বাতিল করা হচ্ছে এইচএসসি ২০২৩ এর MCQ/নৈব্যক্তিক এর অনেক উত্তরপত্র

কেনো বাতিল করা হচ্ছে এইচএসসি ২০২৩ এর MCQ/নৈব্যক্তিক এর অনেক উত্তরপত্র

গত ১৭ই আগস্ট থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়েছিল এইচএসসি পরীক্ষা ২০২৩। আর গত কয়েকদিন হলো পরীক্ষা শেষ হয়েছে। আর বর্তমানে পরীক্ষার খাতা গুলো দেখছে শিক্ষকরা। কিন্তু শিক্ষার্থীদের বহু নির্বাচনী মানে নৈবিত্তিক খাতা দেখছে বোর্ড কর্তৃপক্ষ OMR মেশিনের মাধ্যমে

আর OMR মেশিন হচ্ছে সম্পূর্ণ কম্পিউটার সফটওয়্যার। আর এর মাধ্যমে দেখা হবে খাতাগুলি, এখানে কোন হাতের কাজ নেই। খাতাগুলি সরাসরি প্রোগ্রামিং সফটওয়্যার এর মাধ্যমে শিক্ষার্থী কত নম্বর পেয়েছে, তার কোন SET এ পরীক্ষা হয়েছে এছাড়া তার বিষয় কোড কত ছিল, রোল নম্বর রেজিস্ট্রেশন নম্বর মিলিয়ে শিক্ষার্থী মূল্যায়ন করা হয়ে থাকে এই মেশিন দিয়ে

এইচএসসি ২০২৩ এর MCQ/নৈব্যক্তিক
এইচএসসি ২০২৩ এর MCQ/নৈব্যক্তিক

যে কারনে বাতিল হচ্ছে এইচএসসি ২০২৩ এর MCQ/নৈব্যক্তিক খাতা

কিন্তু আমরা যখন বোর্ডের একাধিক কর্মকর্তার সাথে নৈবিত্তিক বিষয় নিয়ে কথা বলি, তারা জানায় যে, অনেক শিক্ষার্থীর নৈবিত্তিক উত্তরপত্র বাতিল হয়ে গেছে। শুধুমাত্র শিক্ষার্থীদের নিজেদের ছোট ছোট ভুলের কারণে। আর কেন বাতিল হয়েছে সে বিষয়গুলো জানতে চাইলে তারা কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য আমাদেরকে জানিয়েছে। বিজ্ঞপতির সাইট

আরও পড়ুনঃ  শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে ১৬২০০ টাকা উপবৃত্তি প্রদান করবে | কোন কোন শিক্ষার্থী টাকা পাবে জেনে নিন

বহুনির্বাচনি দেখা হয় সম্পূর্ণ কম্পিউটার মেশিনের মাধ্যমে শিক্ষা মন্ত্রণালয় দায়িত্বশীল কর্মকর্তারা এই কথা বলেন। আর এই ক্ষেত্রে কোন ধরনের উত্তরপত্রে দাগ দেওয়া যাবে না। যদি উত্তরপত্রে দাগ পড়ে যায় তবে উত্তরপত্র বাতিল হতে পারে। আর অনেক শিক্ষার্থী এমনভাবে উল দাগ দিয়েছে যার কারণে বাতিল হয়েছে এই উত্তরপত্রগুলি। এছাড়াও পরীক্ষায় অনেক শিক্ষার্থী রোল নাম্বার সেট কোড এমনকি রেজিস্ট্রেশন নম্বর লেখেনি। সে ক্ষেত্রে তাদের উত্তরপত্র গুলো বাতিল হয়েছে। আর এমতাবস্থায় সে উত্তরপত্র গুলো নিয়ে পরবর্তীতে সিদ্ধান্ত হবে।

ধারণা করা হচ্ছে যে আরো একবার দেখা হবে খাতাগুলি। শিক্ষক অথবা বোর্ডের কর্মকর্তারা বিষয়গুলো পর্যবেক্ষন করে মূল্যায়ন করবে। আর যদি মূল্যায়ন না করে তাহলে হয়তো তাদের ওই বিষয়গুলোতে FAIL চলে আসতে পারে।

আরও পড়ুনঃ  অক্টোবর মাসের বেতনের চেক দিচ্ছে কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তর | কারা পাবে এই বেতন? - দেখে নিন!

আর যদি শিক্ষার্থীরা যে বিষয় গুলিতে ফেল করেছে এবং সেক্ষেত্রে যদি এরকম ভুলের কারণে ফেল করে তবে বোর্ডের কাছে তারা চ্যালেঞ্জ করতে পারবে। এইচএসসি ২০২৩ রেজাল্ট প্রকাশে পরবর্তীতে তখন আবার এ বিষয়গুলো পর্যবেক্ষন এবং মূল্যায়ন করা হবে। বোর্ডের অনেক কর্মকর্তা বলেন বহুনির্বাচনের ক্ষেত্রে আমরা যথেষ্ট গুরুত্ব দিচ্ছি, যাতে করে শিক্ষার্থীদেরকে সুন্দরভাবে মূল্যায়ন করা যায়।

আরও পড়ুনঃ

  1. একাদশ শ্রেণির ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২৩ | ভর্তি ২৬ সেপ্টেম্বর থেকে ৫ অক্টোবর
  2. এইচএসসি ২০২৩ এর খাতা দেখা নিয়ে সুসংবাদ ও দুঃসংবাদ
  3. কলেজ ভর্তির ২য় অটো মাইগ্রেশন রেজাল্ট দেখার নিয়ম – অটোমাইগ্রেশন

উপসংহারঃ

আর এই জাগায় যেহেতু কম্পিউটারের এর মাধ্যমে সবকিছু করা হচ্ছে, সেক্ষেত্রে এখানে আমাদের অতিরিক্ত কোন কিছুই করতে হচ্ছে না। কিন্তু দুক্ষের বিষয় কিছু খাতা বাতিল হচ্ছে। যে সমস্থ শিক্ষার্থীরা ভুল করেছে তাদের খাতা গুলো বাতিল করা হচ্ছে। তবে তার সংখ্যা অনেক কম। যদি রেজাল্ট প্রকাশের পরবর্তীতে শিক্ষার্থী দেখে সে ফেইল করেছে তাহলে সে অবশ্যই বোর্ড চ্যালেঞ্জ করার জন্য আমরা পরামর্শ দিয়ে থাকব।

আরও পড়ুনঃ  যেভাবে দেখছে ইংরেজি ১ম ও ২য় পত্র খাতা | এইচএসসি পরীক্ষা ২০২৩

About the Author

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You may also like these

Share via
Copy link