বাংলালিংক ট্যুরিস্ট সিম এর প্যাকেজ গুলো জেনে নিন এখনি

বাংলালিংক ট্যুরিস্ট সিম এর প্যাকেজ

দেশের প্রায় অর্ধেক মানুষ ব্যাবহার করে বাংলালিংক অপারেটর। তবে বাংলালিংক ট্যুরিস্ট দের জন্য নিয়ে এলো বাংলালিংক ট্যুরিস্ট সিম। আজকে আমরা এই বাংলালিংক ট্যুরিস্ট সিম এর প্যাকেজ গুলি সম্মন্ধে আলোচনা করবো বিস্তারিত ভাবে।

বাংলালিংক ট্যুরিস্ট সিম

টেলিকমিউনিকেশন ইন্ডাস্ট্রিতে বাংলাদেশের বাংলালিংক এর অবদান কোনো ক্ষেত্রেই কম নয়। এই কোম্পানিটি নতুন প্রযুক্তি ব্যবহার করে দেশব্যাপী নেটওয়ার্ক সেবা প্রদানের জন্য অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছে। দেশের মানুষের জন্য সেবার পাশাপাশি দেশে আগত পর্যটকদের জন্য বাংলালিংক নিয়ে এসেছে নতুন নতুন সেবা। সম্প্রতি তারা দেশে অবস্থানরত পর্যটকদের জন্য একটি নতুন সিম কার্ড উন্মোচন করেছে যা ট্যুরিস্ট সিম নামে পরিচিত। চলুন জেনে নেই এই সিম সম্পর্কে।

বিদেশি পর্যটকদের জন্য বাংলালিংকের ট্যুরিস্ট সিম

বাংলাদেশে আগত পর্যটকরা ট্যুরিস্ট সিমের মাধ্যমে স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক কল, এসএমএস এবং বাংলালিংকের অনেক ডিজিটাল সেবা গ্রহণ করতে পারবেন। প্যাকেজের মেয়াদ শেষ হলে বা ব্যবহারকারীর ভিসার মেয়াদ শেষ হলে এই সিম কার্ডটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে নিষ্ক্রিয় হয়ে যাবে। একেক ট্যুরিস্ট দেশের বিভিন্ন পর্যটক স্থান সহ দেশের মধ্যে থাকা বাংলালিংকের সেন্টার থেকে তাদের পাসপোর্ট সহ প্রয়োজনীয় সকল কাগজপত্র প্রদান করে সর্বোচ্চ দুইটি ট্যুরিস্ট সিম ক্রয় করতে পারবেন। ট্যুরিস্ট সিমে বাংলালিংক বিভিন্ন মেয়াদে সর্বমোট ছয়টি প্যাকেজ চালু করেছে।

আরও পড়ুনঃ  বাংলালিংক সিমের নাম্বার দেখে কিভাবে | বাংলালিংক নাম্বার বের করার নিয়ম
বাংলালিংক ট্যুরিস্ট সিম
বাংলালিংক ট্যুরিস্ট সিম

বাংলালিংক ট্যুরিস্ট সিম এর প্যাকেজ

Start Up বান্ডেল (এটি শুধুমাত্র বাংলালিংক সেন্টার থেকে নেওয়া যাবে)
৭ দিন, ১৫ দিন ও ৩০ দিন এই মেয়াদে দুইটি করে মোট ছয়টি প্যাকেজ নিয়ে এসেছে বাংলালিংকের এই ট্যুরিস্ট সিমটি। উক্ত প্যাকেজগুলো হলোঃ-

৭ দিন

৬৫০ টাকার এই প্যাকেজে ১০০ লোকাল মিনিট, ৫ জিবি ইন্টারনেট, ৫০ টি যেকোনো অপারেটরে এসএমএস এবং শুধুমাত্র আইএসডি কলের জন্য মেইন ব্যালেন্সে ৫০ টাকা থাকবে। এছাড়া এই একই মেয়াদে ২০০ লোকাল মিনিট, ১২ জিবি ইন্টারনেট, ১০০ টি যেকোনো অপারেটরে এসএমএস এবং শুধুমাত্র আইএসডি কলের জন্য মেইন ব্যালেন্সে ১০০ টাকা থাকবে এবং যার মূল্য ১০০০ টাকা।

১৫ দিন

১০০০ টাকার বিনিময়ে এই প্যাকেজে পাওয়া যাবে ৩০০ লোকাল মিনিট, ১৫ জিবি ইন্টারনেট, ১০০ টি যেকোনো অপারেটরে এসএমএস এবং শুধুমাত্র আইএসডি কলের জন্য মেইন ব্যালেন্সে ১০০ টাকা। এছাড়া ৫০০ লোকাল মিনিট, ২৫ জিবি ইন্টারনেট, যেকোনো অপারেটরে ১০০ টি এসএমএস এবং আইএসডি কলের জন্য মেইন ব্যালেন্সে ১০০ টাকা থাকবে এই একই মেয়াদের অন্য একটি প্যাকেজে। যার জন্য ব্যবহারকারীকে ১৫০০ টাকা খরচ করতে হবে।

আরও পড়ুনঃ  ২০২৩ বাংলালিংক নাম্বার চেক কোড | How to Banglalink Number Check
৩০ দিন

১০০০ টাকার এই প্যাকেজে ৩০০ লোকাল মিনিট, ১০ জিবি ইন্টারনেট, ১০০ টি এসএমএস এবং ১০০ টাকা আইএসডি কলের জন্য ব্যালেন্স হিসেবে থাকবে।
একই মেয়াদের অন্য প্যাকেজে ৫০০ লোকাল মিনিট, ৩০ জিবি ইন্টারনেট, ২০০ টি এসএমএস এবং আইএসডি কলের জন্য ২০০ মিনিট বরাদ্দ থাকবে। যার মূল্য ২০০০ টাকা।

এছাড়া মেয়াদ শেষ হয়ে গেলে বা ব্যালেন্স শেষ হয়ে গেলে এড অন প্যাকেজের মাধ্যমে ব্যালেন্স বা মেয়াদ বাড়িয়ে নেওয়া যাবে। এটি বাড়িয়ে নেওয়ার জন্য নতুন করে বাংলালিংক সেন্টারে যাওয়ার প্রয়োজন পড়বে না। মোবাইল ফোনে *১২১*৮৭৮# অথবা My Bl app ডাউনলোড করে এড অন প্যাকেজগুলো গ্রহন করা যাবে।

আজকের শেষ কথা,

বাংলালিংক তাদের 4G নেটওয়ার্ক কভারেজের মাধ্যমে দেশের সব প্রান্তে তাদের সেবা প্রসারিত করছে। এছাড়া বাংলালিংকে সেরা কাস্টমার কেয়ার সার্ভিস পাওয়া খুবই সহজ। বাংলালিংকের এই নতুন সিম সম্পর্কে আপনার কোন মতামত বা প্রশ্ন থাকলে আমাদের কমেন্ট করতে পারেন।

আরও পড়ুনঃ  বাংলালিংক নতুন সিম অফার 2023 | Banglalink New SIM Offer 2023

About the Author

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You may also like these

Share via
Copy link